ক্রেতাশুন্য রাজধানীর কাঁচাবাজার

Comments are closed

ঈদুল আযহার ছুটির পর প্রথম শুক্রবার। রাজধানীর নিত্যপন্য বাজারে পণ্য আছে ঠিকই, কিন্তু নেই ক্রেতা। বেশিরভাগ নিত্যপন্যের দাম আগের মতোই। যারা আসছেন তারা আগের দামেই কিনছেন প্রয়োজনীয় পণ্য।  তবে দু’একদিনের মধ্যেই বাজার জমে উঠবে বলে মনে করছেন বিক্রেতারা।

মাসের অন্যান্য যেকোন শুক্রবার মানেই বাজারে থৈ থৈ মানুষ। মানুষের ভীড়ে এক পাও এগুনো কষ্টকর। তারওপর বাজারে দামদরের হৈ চৈয়ে কান পাতাও অনেকটা দায়। কিন্তু আজকের চিত্র একেবারেই ভিন্ন। বারটা ছুটিরই, বাজারে ক্রেতার ভীড় নেই এতটুকুও।  ক্রেতাশূন্য বাজারে দোকানদারা কুশল বিনিময়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। আদা রসুন,পেয়াজ,আলুসহ সবজাতীয় মসলার দাম এখনও আগের মতোই আছে- বললেন বিক্রেতারা।

একই পরিস্থিতি দেখা গেল সবজি আর মাছের বাজারেও। বেশিরভাগ সবজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৬০ টাকার মধ্যে। তকে কাঁচামরিচের দামে ভিন্নতা পাওয়া গেছে।

আর যেসব ক্রেতারা বাজারে এসেছেন, তারা বলছেন পন্যের দাম স্বাভাবিকই।

কোরবানীর ঈদ হওয়ায় খাসি ও গরুর মাংসের দোকানগুলো বেশিরভাগই বন্ধ ছিল। পাশাপাশি এখনও ১৩০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে মুরগি।

Comments are closed.

Web Design BangladeshWeb Design BangladeshMymensingh