”ডুব” নিয়ে বিতর্ক বনাম ভুল বোঝাবুঝি

Comments are closed

 

দুই পক্ষের টানাটানিতে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে আলোচিত চলচ্চিত্র ডুব’র ভবিষ্যত। প্রখ্যাত কথা সাহিত্যিক হুমায়ুন আহমেদকে বিতর্কিত উপস্থাপন করা হয় এমন যেকোন চলচ্চিত্রের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ার কথা জানিয়েছেন হুমায়ূনের স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন। অন্যদিকে, ডুবের পরিচালক মোস্তফা সরোয়ার ফারুকী আর প্রযোজনা সংস্থা বলছে ডুব চলচ্চিত্রে আনা হয়নি হুমায়ূন আহমেদকে।

গেল বছরের শুরুতেই বেশ ঘটা করে মহরত হয় যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্র ডুবের। যে ছবির গল্প নিয়ে বরাবরই লুকোচুরি করেন পরিচালক মোস্তফা সরোয়ার ফারুকী। কিন্তু গেল বছর ভারতীয় পত্রিকার সংবাদে প্রকাশ হয় ডুব চলচ্চিত্রে উঠে এসেছে প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক হূমায়ূনের জীবনি। এ নিয়েই আপত্তি হুমায়ূন আহমেদের স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওনের। তিনি আজ সংবাদ সম্মেলন করে এ বিষয়ে নিজের অভিমত তুলে ধরে বলেন- প্রখ্যাত কথাসাহিত্যক হুমায়ূন আহমেদ। শুধু তার স্ত্রী বলে নয়,তার একজন ভক্ত হিসেবে বলছি-হুমায়ূন আহমেদের জীবনকে কেউ ভুলভাবে উপস্থাপন করবে,এমন যেকোন চলচ্চিত্রের বিপক্ষেই আমার অবস্থান হবে। আর ডুব এর কলাকুশলীদের ফেসবুক স্ট্যাটাস আর বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরের মাধ্যমে আমার এই আশংকা। যে কারনে আমি সেন্সর বোর্ডে আপত্তিপত্র দিয়েছি। এখন এই আপত্তিপেত্রর প্রেক্ষিতেই যে তথ্য মন্ত্রনালয় ছবিটির সেন্সর ছাড়পত্র স্থগিত করেছে সেটাও আমাকে কোন নথির মাধ্যমে জানানো হয়নি। সেন্সর বোর্ডের কাছে আমার অনুরোধ,তারা যেন ছবিটি ভালভাবে রিভিউ করে এবং এর মধ্যে যদি আপত্তিকর বিষয় থাকে তবে সেগুলোকে পরিবর্তন করেই যেন মুক্তি দেয়।

শাওনের সংবাদ সম্মেলনের পরপরই গনমাধ্যমের সাথে কথা বলতে অস্বীকৃতি জানান নির্মাতা ফারুকী । যদিও শুরু থেকেই নির্মাতা ফারুকী  জানিয়ে আসছেন ডুব হূমায়ূন আহমেদের বায়োপিক নয়। এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমে কিছুটা ধোয়াশা রেখেই মন্তব্য করেন তিনি। কিন্তু এ বিষয়ে তার সাথে যোগাযোগ করা হলে ছবিটির সমস্ত বিষয় এখন প্রযোজনা সংস্থা জাজ মাল্টিমিডিয়ার ওপর বলে জানান তিনি।

এদিকে মেহের আফরোজ শাওন সেন্সর বোর্ডে ছবিটির বিরদ্ধে আপত্তিপত্র দিয়ে আবেদন করার পর ছবিটির সেন্সর ছাড়পত্র স্থগিত হলেও জাজের কর্নধার আব্দুল আজিজ জানালেন ভিন্ন কথা।ছবির ছাড়পত্র নিয়ে প্রশ্ন করায় তিনি বলেন-পহেলা বৈশাখেই মুক্তি পাবে ডুব। যদি বাংলাদেশে না হয়,বহি:বিশ্বে মুক্তি পাবে ডু্ব। আমি আশাবাদি তথ্য মন্ত্রনালয় কয়েক দিনের মধ্যেই এই স্থগিতাদেশ তুলে নিবেন। আর হুমায়ুন আহমেদকে নিয়ে যে বিতর্ক চলমান-তাতে মেহের আফরোজ শাওন বিভ্রান্ত হচ্ছেন। ছবিতে কোথাও হুমায়ূন আহমেদকে আনা হয়নি।

যখন ডুব বিতর্কে মিডিয়া পাড়া সরগরম-তখন এই নিয়ে হিসেব মিলাচ্ছেন হুমায়ুন ভক্ত আর দর্শকরা। যাদের বেশিরভাগেরই মত-আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রচারনা করাই এ বিতর্কের মূল লক্ষ্য। যদিও কলাকুশলীরা বলছেন সব বিতর্ক অনাকাঙ্খিত।

প্রতিবেদন: জাকিয়া হিমু

Comments are closed.

Web Design BangladeshWeb Design BangladeshMymensingh