লঞ্চের আগাম টিকেট বিক্রির প্রক্রিয়া শুরু

Comments are closed

প্রতিবছর ঈদ এলেই শহর-নগর ছেড়ে গ্রামীন জনপদে ছোটে পরিবার প্রিয় বাঙালী। তাই একসঙ্গে বাড়তি চাপে পড়ে দেশের পরিবহন ব্যবস্থা। এ অবস্থায় কিছুটা স্বস্তি পাওয়া যায় পরিবহনের অগ্রিম টিকেট সেবার। তাই বরাবরের ন্যায় এবারও পবিত্র ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে এরই মধ্যে লঞ্চের অগ্রিম টিকেট বিক্রি প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এছাড়া দুয়েক দিনের মধ্যে পাওয়া যাবে বাস ও ট্রেনের টিকেটও । ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে এবারও নদীপথে দক্ষিণাঞ্চলের সবগুলো রুটে ব্যবস্থা রয়েছে বিশেষ ঈদ সার্ভিসের। এ উপলক্ষ্যে সকাল থেকেই ঘরমুখো যাত্রীদের লঞ্চের কেবিনের অগ্রীম বুকিং শুরু হয়েছে। বুকিং স্লিপ জমা দিয়ে আগামী ২৮ আগস্ট থেকেই তুলতে পারবেন যেকোন গন্তব্যের টিকেট। আর স্টিমারের বুকিং শুরু হবে ১ সেপ্টেম্বর থেকে।

নদীমাত্রিক দেশ হলেও দেশের বেশিরভাগ মানুষের যাতায়াত সড়ক পথে। প্রতিবছর ঈদ এলে তাই বাড়তি চাপে পড়ে সড়ক পরিবহন ব্যবস্থা। এবারের ঈদে ঘরমুখো মানুষের জন্য বাসের অগ্রীম টিকেট বিক্রি শুরু হওয়ার কথা ২৬ আগস্ট থেকে। বাস মালিক সমিতির ঘোষণা অনুযায়ী, সব ঠিক থাকলে যাত্রীরা এদিন থেকেই যে কোনো রুটের জন্য  অগ্রীম টিকেট সংগ্রহ করতে পারবেন।

এদিকে, আগাম টিকেট ছাড়ার পরিকল্পনা রয়েছে রেল বিভাগেরও। ২৯ আগস্ট থেকে শুরু হবে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি। যার ফিরতি টিকিট পাওয়া যাবে ৫ সেপ্টেম্বর থেকে।

ঈদ কিংবা অন্যান্য বিশেষ উৎসব কেন্দ্রীক আগাম টিকেট সেবা যেমন পুরাতন, তেমনি পুরাতন এ টিকেট প্রাপ্তি নিয়ে ভোগান্তিও। আর সেইসঙ্গে টিকেটের বাড়তি দাম এবং মহাসড়কে যানজটের যে পুরনো চিত্র তা এবারের ঈদে আর নতুন করে দেখতে হবে না – এমন প্রত্যাশা সাধারন জনগণের।

Comments are closed.

Web Design BangladeshWeb Design BangladeshMymensingh