লোকসানে মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীরা

Comments are closed

অন্যান্যবারের তুলনায় এবার মন্দা যাচ্ছে চামড়ার বাজার। পাচ্ছেন না চামড়ার নির্ধারিত মূল্যও পাচ্ছেন না তারা-দাবি মৌসুমি ব্যবসায়ীদের। চামড়া সম্পর্কে অনভিজ্ঞতা  এবং সরকারি নির্ধারিত দামে চামড়া না কেনায় মৌসুমি ব্যবসায়ীদের লোকশান গুনতে হচেছ- বলছেন ট্যানারি মালিকরা।

গাজীপুরের গরুর চামড়ার মৌসুমি ব্যবসায়ী আবুল কালাম। প্রায় ঘন্টাখানেক ধরে  কোরবানির গরুর চামড়া নিয়ে রাজধানীর হাজারিবাগের ট্যানারি শিল্প এলাকায়  বিভিন্ন ট্যানারি মালিকের দ্বারে দ্বারে ধর্না দিচ্ছেন। কিন্তু একটি চামড়াও বিক্রি করতে পারেননি এখনও। ছল ছল চোখে বলছিলেন, যে দামে চামড়া কিনে এনেছেন তার চেয়ে চামড়া প্রতি ৪ থেকে ৫শত টাকা কম দাম বলছেন মালিকরা।

এ বিষয়ে তাজ ট্যানারি শিল্প কারখানা কর্মচারি রশিদুল ইসালাম জানান, গত রাত থেকে বেশ কিছু চমড়া ভর্তি ট্রাক হাজারীবাগে প্রবেশ করেছে। ফলে চামড়া  বিক্রি করতে না পেরে চলে গেছে অধিকাংশই মৌসুমি ব্যবসায়ী।

অন্যান্য বারের তুলনায় এবার চামড়ার বাজার খারাপ জানিয়ে ট্যানারি মালিকরা  বলছেন, রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মৌসুমি ব্যবসায়ীরা আসলেও চামড়া সম্পর্কে তাদের অনভিজ্ঞতা এবং বাজার সম্পর্কে ধারণা কম থাকায়  তাদের লোকসান গুনতে হচ্ছে।

এছাড়াও এবার লবনের দাম বেশি হওয়াকেও লোকসানের কারণ বলছেন এসব ট্যানারী মালিকরা।

এখনও মৌসুমি ব্যবসায়ীরা রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে চমড়া নিয়ে আসছেন  ট্যানারি মালিকদের কাছে। লোকসান পুষিয়ে দিতে সরকারি তদারকি দাবি করেছেন মৌসুমী ব্যবসায়ীরা।

Comments are closed.

Web Design BangladeshWeb Design BangladeshMymensingh